সার্জিকাল স্ট্রাইক নিয়ে পাকিস্তানের মতো এদেশের বিরোধীরাও অস্বীকার করেছেঃ মোদি

নয়াদিল্লি: সার্জিকাল স্ট্রাইক নিয়ে বিরোধী দলীয় নেতারা কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে তুলোধোনা করতে ছাড়েনি এবং সেনাদের কৃতিত্ব সার্জিকাল স্ট্রাইক উপর সন্দেহ প্রকাশ করেছিল। সন্দেহের প্রশ্ন তুলে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের কেন্দ্র সরকারের কাছে ভিডিও প্রমাণ চেয়েছিল শুধুই বিরোধীরা নয় বরং সার্জিক্যাল স্ট্রাইক অস্বীকার করেছিল পাকিস্তান। প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, দুর্ভাগ্যজনক যে, পাকিস্তানের সাথে এদেশের বিরোধীদলীয় নেতারাও সার্জিক্যাল স্ট্রাইককে অস্বীকার করছে।

মঙ্গলবার সংবাদ সংস্থা ANI কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ২০১৬ সালের পাকিস্তানের উপর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে একাধাকি প্রশ্নের মুখোমুখি হলেন এবং জবাব দিলেন। সাথে পাকিস্তানের সাথে বিরোধি দলের বিরোধিতাকে একহাত নিলেন। আদৌ কি সার্জিকাল স্ট্রাইক হয়েছে কি হয়নি এরকম একটা সন্দেহ প্রকাশ করেছিল বিরোধীদলীয় নেতারা। প্রধানমন্ত্রী তাদের এক হাত নিয়ে বলেন, “দেশের জন্য দুর্ভাগ্যজনক যে সার্জ়িকাল স্ট্রাইকের দিনেই কয়েকটি দলের কয়েকজন নেতা তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। দেশকে জানানোর আগে পাকিস্তানকে জানানো হয়। সেনাবাহিনীর এক অফিসার দেশকে প্রথম সার্জ়িকাল স্ট্রাইকের বিষয়টি জানান। নিজেদের মনোবল বজায় রাখার জন্য সার্জ়িকাল স্ট্রাইকের কথা অস্বীকার করা পাকিস্তানের কাছে দরকারি ছিল। কিন্তু, পাকিস্তানের তরফে যা বলা হচ্ছে তা আমাদের এখানেও বলা হচ্ছিল। যাঁরা সার্জ়িকাল স্ট্রাইক নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন, তাঁরা ভুল। এরকম বিষয় হওয়া উচিত নয়।”
সার্জিকাল স্ট্রাইক নিয়ে ভারতীয় সেনাদের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, “যেভাবে ভারতীয় জওয়ানরা সার্জ়িকাল স্ট্রাইক চালিয়েছেন, তাতে আমাদের সেনার শক্তির নতুন পরিচয় পাই। ভারতীয় সেনার যে সামর্থ্য, তা অদ্ভুত। আমি তো মাথা ঝুঁকে তাঁদের প্রণাম করতে চাই। গর্ব হয় আমার।”

No comments

Powered by Blogger.