হুমায়ূন মৃত্যুর আগে বাবরকে বলেছিলেন গরুকে বিশেষ মর্যাদা দিতে, ইতিহাস পাল্টে দিলেন রাজস্থান বিজেপি সভাপতি

জয়পুর : আলোয়ারে রাকবর খান নামে এক যুবককে গোপাচারের সন্দেহে গণপিটুনিতে মেরে ফেলার অভিযোগে সরগরম দেশ। তার মধ্যেই বিজেপির রাজস্থান শাখার সভাপতি মদন লাল সাইনি গোহত্যা কখনও মেনে নেওয়া চলে না বোঝাতে গিয়ে বললেন, ঔরঙ্গজবের শাসনেও গোহত্যা অনুমোদন করা হত না। রাকবরকে তিনি গোপাচারকারী বলেই দাবি করেন।
মাত্র কিছুদিন আগে রাজস্থান বিজেপির ভার নেওয়া সাইনি বলেছেন, “যে কোনও দেশ, সমাজ, ধর্মের কাছে শ্রদ্ধার বিষয়গুলিকে সকলেরই মেনে চলা উচিত। আমার মনে পড়ে যাচ্ছে, হুমায়ুনের যখন মৃত্যু আসন্ন, তিনি বাবরকে তলব করে বলেন, হিন্দুস্তান শাসন করতে চাও তো তিনটে ব্যাপার মাথায় রেখো। গরু, ব্রাহ্মণ ও মহিলা, এদের কোনওরকম অমর্যাদা যেন না হয়। হিন্দুস্তান তা সহ্য করবে না।”
কিন্তু ইতিহাস বলছে, হুমায়ুন বাবরের পুত্র। হুমায়ুনের মৃত্যুর ২৫ বছর আগেই জীবনাবসান হয় বাবরের। অর্থাত্ ইতিহাস মানতে হলে হুমায়ুনের বাবরকে তলব করার তথ্যটি একেবারেই ঠিক নয়।
সাইনি আরও বলেন, “আপনাদের মনে করিয়ে দিতে চাই, ভয়ানক কট্টর মানুষ ঔরঙ্গজেবের শাসনেও গোহত্যা বন্ধ ছিল। মুসলিম শাসকরা কখনও গোহত্যা অনুমোদন করতেন না। তাহলে তাঁদের কথা কেন মানা হচ্ছে না? যার মৃত্যু নিয়ে এত শোরগোল, সে ছিল অপরাধী। এ ব্যাপারে ওর নামে মামলাও ঝুলছিল। তবে ঘটনাটা দুর্ভাগ্যজনক। আমরা গণতন্ত্রে বাস করছি। এখানে আইনের শাসন চলে। সেজন্য কারও আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া উচিত নয়।”

No comments

Powered by Blogger.